Ultimate magazine theme for WordPress.

সার্বিয়ার সাথে চাপমুক্ত থাকতে চায় ব্রাজিল

2

কাতাররের মাটিতে কি শেষ হবে ২০ বছরের অপেক্ষা? ব্রাজিল পঞ্চম বিশ্বকাপ জিতেছিলো এশিয়ার এই মাটি থেকেই। তারপর শুধু আশার পালা।

আশায় আশায় থেকে পার করেছে বিগত চারটি আসর। এবার কাতারের মাটিতে ব্রাজিল এসেছে সেই একই আশা নিয়ে।

সবার ভাবনা একটাই ব্রাজিল কি পারবে তাদের হেক্সা জয়ের আশা পূরণ করতে? দীর্ঘ ২০ বছরের প্রতিক্ষা কী সফলতার বার্তা আনবে?

এই বহুল আকাঙ্খিত হেক্সা জয়ের আশা নিয়ে গ্রুপ জি পর্বে প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে সার্বিয়ার সাথে। বাংলাদেশ সময় আজ দিবাগত রাত ১টায় সার্বিয়া এবং মুখোমুখি হবে লুসাইল আইকম্মিক স্টেডিয়ামে।

প্রতিবছরই ব্রাজিলের গায়ে লেগে থাকে বিশ্বকাপ জয়ের তকমা। কিন্তু শেষ অবধি বাস্তবায়ন হয় না বিশ বছর হলো। তবে এবার অনেক বাধাকে তারা মাড়িয়ে একটা ভালো খেলা উপহার দিতে চায় নেইমার বাহিনী।

তরুণ প্রজম্ম বা এক ঝাঁক তরুণ প্রতিভাধর খেলোয়াড় নিয়ে মাঠে নামছে ব্রাজিল দল। নতুনদের নিয়ে হয়তো একটু বিরম্বনায় পড়তেই পারেন তিতে।

দলের ১৬ জনের নেই বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা। অবশ্য ২৬ জনের মধ্যে বাকী ১০ জনের রয়েছে অভিজ্ঞতার বিশাল ভান্ডার। অন্যদের মধ্যে ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাবে খেলে নিজেরে তৈরি করেছে।

একঝাঁক তরুণের সাথে আছে ব্রাজিলের হেক্সাজয়ের স্বপ্নসারথি নেইমার। জানা গেছে, ২০১৮ সালের কোয়ার্টার ফাইনলে বেলজিয়ামের কাছে হারের পর থেকে এ পর্যন্ত ৫০ ম্যাচে ৩৭ টি জয় উপহার দিয়েছে ব্রাজিল।

পুরো এ সময়ের মধ্যে ব্রাজিল কেবলমাত্র একটি আনুষ্ঠানিক ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। আর তা হলো ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে।

খুব বেশি দূরে নয় মাত্র চার বছর আগে রাশিয়াতেও গ্রুপ পর্বে এই সার্বিয়ার মোকাবেলা করেছিল ব্রাজিল। উক্ত ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছিলো সেলেসাওরা।

সব ধরনের অভিজ্ঞতার ঝুলি নিয়ে শেষ ৭ ম্যাচে দাপুটে জয়ে ব্রাজিল মাঠে নামবে জয়ের আত্মবিশ্বাসের সাথে।

এতে ২৬ গোল দেওয়ার বিপরীতে খুব ভালোভাবে হজম করতে হয়েছে মাত্র ২ গোল। সার্বিয়ার বিপক্ষে যে দুটি ম্যাচে জয়ী হয়েছিলো ব্রাজিল, তার কোনটিতেই ব্রাজিলকে কোন গোল দিতে পারেনি সার্বিয়া। মূলত এদুটি খেলায় ব্রাজিলের জালে বল প্রবেশ করাতে পারেনি সার্বিয়া।

১৯৯০ সালে স্বাধীনতা লাভ করে সার্বিয়া। স্বাধীনতার আগে তিন বিশ্বকাপেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয়েছে সার্বিয়াকে। এই প্রথমবারের মত বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে খেলার স্বপ্ন নিয়েই কাতারে এসেছে তারা।

ফিফা র‍্যাংকিংয়ে ২৫তম স্থানে থাকা ‘দ্য ঈগলসরা’ উয়েফা বাছাইপর্বে ৮ ম্যাচে ৬ জয় ও ২ ড্র নিয়ে শীর্ষ দল হিসেবেই কাতারের টিকিট পেয়েছে।

তবে একথা সবারই জানা যে, কখনই ব্রাজিলের মত টুর্নামেন্টের হট ফেবারিট দলের বিপক্ষে বিশ্বকাপ শুরু করেনি সার্বিয়া। সব হিসাব নিকাশ শেষে যে ফল তা হলো বিশ্বকাপে শেষ ৯ ম্যাচের ৭ টিতেই হেরেছে সার্বিয়া।

। আরো পড়ুন

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল আজ